৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে সরকারি স্কুলের প্রবেশপথ মাছ ব্যবসায়ীদের দখলে, দুর্গন্ধে শ্রেণি পাঠদান ব্যহত

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৯:৩৭ অপরাহ্ণ , ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 year আগে

সরাইলে সরকারি স্কুলের প্রবেশপথ মাছ ব্যবসায়ীদের দখলে, দুর্গন্ধে শ্রেণি পাঠদান ব্যহত

এম এ করিম সরাইল নিউজ ২৪.কমঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রবেশ পথ মাছ ব্যবসায়ীদের দখলে। সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক সড়কের পাশে উপজেলা সদরের উচালিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রবেশপথে বসে মাছ ব্যবসায়ীদের রমরমা ব্যবসা। প্রতিদিন ভোর ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ঢালা সাজিয়ে মাছ বিক্রি করতে বসেন ব্যবসায়ীরা। ফলে ক্রেতা বিক্রেতাদের ভীড়ে কোমলমতি স্কুল শিক্ষার্থীরা স্কুলে প্রবেশ করতে ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

তাছাড়া মাছের নোংরা পানি আর ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ স্কুলের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা। দূর্গন্ধ এড়াতে নাকে হাত দিয়ে চেপে ধরে স্কুলে প্রবেশ করতে দেখা গেছে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের।
স্কুলের পঞ্চম শ্রেনির শিক্ষার্থী মেরাজ মিয়া, মেহেদী হাসান, জাহিদুল ইসলাম, জাকারিয়া বলেন, স্কুল গেইটে মানুষের ভীড়ের কারণে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে তাদের অনেক কষ্ট হয় আর মাছের পঁচা পানির দূর্গন্ধে মাথা ঘুরায়,বমি বমি লাগে। দূর্গন্ধের কথা মনে পড়লে স্কুলে যেতে ইচ্ছে হয়না তাদের ।

ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেনির ছাত্রী মাহাবীয়ার বাবা আলামিন মিয়া জানান,তাঁর মেয়ে প্রায়ই বাড়িতে এসে অভিযোগ করে বিদ্যালয়ে ক্লাস করার সময় নাকে পঁচা মাছের গন্ধ লাগে। সহ্য করতে পারে না। বিষয়টি তিনি প্রধান শিক্ষককে জানিয়েছেন।
মাছ ব্যবসায়ী দুলাল মিয়া(৫০) জানান, আগে ব্যবসায়ী কম ছিল। এখন বেশী হওয়ার কারণে স্কুল গেইট পর্যন্ত বসতে হয়। যেহেতু বাচ্ছাদের অসুবিধা হয় তাই স্কুল গেইটে এখন থেকে আর কোনো ব্যবসায়ী বসবে না। তিনি আরও জানান, ২বছর আগে প্রশাসন একবার নিষেধ করেছিল। কিছুদিন বাজার বন্ধও ছিল। এলাকার মানুষের সুবিধার্থে আবার চালু হয়েছে।

প্রধান শিক্ষক মোছা.শামসুন নাহার সুলতানা হক জানান,
দুই বছর আগে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে মাছ বাজারটি এখান থেকে সরিয়ে নিলেও করোনার বন্ধের সুযোগে আবার নতুন করে বড় পরিসরে শুরু করেছে ব্যবসায়ীরা। স্কুলের দক্ষিণ পাশের দুটি রুমে মাছ বাজারের দূর্গন্ধে ক্লাস করা যায় না। শিক্ষার্থীরা বাড়িতে গিয়ে তাদের অভিভাবকদের কাছে ওই দূর্গন্ধের জন্য অভিযোগ করে।
ছাত্র ছাত্রীরা বিদ‍্যালয়ে আসতে চায় না। তাছাড়া দূর্গন্ধের কারণে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান দিতেও কষ্ট হচ্ছে শিক্ষকদের। তাই মাছ বাজারটি স্কুলের সামনে থেকে সরানোর জন‍্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন তিনি।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবদুল আজীজ বলেন, “যে রাস্তাটিতে মাছ বাজার বসে ওই রাস্তাটি সরকারী রাস্তা। যেহেতু মাছ বাজারটি শিক্ষার্থীদের সমস্যা করছে তাই ইউএনও মহোদয়, স্থানীয় চেয়ারম্যান ও স্কুল কমিটির সাথে কথা বলে খুব দ্রুত মাছ বাজারটি সরানোর ব্যবস্থা করবো।”

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

October 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন