১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে শাটডাউনের পর আকস্মিক লাইন চালু, অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন বিদ্যুৎ অফিসের অস্থায়ী লাইনম্যান আসলাম খান

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ , ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 years আগে

সরাইলে শাটডাউনের পর আকস্মিক লাইন চালু, অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গেলেন বিদ্যুৎ অফিসের অস্থায়ী লাইনম্যান আসলাম খান

এম এ করিম সরাইল নিউজ ২৪.কমঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ) কার্যালয়ের অস্থায়ী লাইনম্যান আসলাম খান বিদ্যুৎ খুঁটিতে উঠে ইরিগেশনের লাইন বিচ্ছিন্ন করার সময় হঠাৎ বিদ্যুৎ চলে আসে। এতে করে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান তিনি।

গত রোববার রাত সাড়ে ৯টায় সরাইল উপজেলা চুন্টা ইউনিয়নের করাতকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আসলাম খান সরাইল উপজেলা সদর ইউনিয়নের বড় দেওয়ান পাড়ার বাসিন্দা। দীর্ঘ সাড়ে তিন বছর ধরে সরাইল নির্বাহী প্রকৌশলী কার্যালয়ে অস্থায়ী লাইনম্যান হিসেবে কাজ করে আসছেন তিনি।

অস্থায়ী লাইনম্যান আসলাম খান ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার রাত সাড়ে ৯টায় সরাইল উপজেলা চুন্টা ইউনিয়নের করাতকান্দি গ্রামে ইরিগেশনের খুঁটি ভেঙে পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী বিদ্যুৎ অফিসে খবর দেন। পরে বিদ্যুৎ অফিসের সহকারী লাইনম্যান শামছু উদ্দিন অস্থায়ী লাইনম্যান আসলাম খানকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান।
এ সময় শামছু উদ্দিন এস বি এ বাবুল হাসানকে শাটডাউন দিতে বললে তিনি শাটডাউন দেন। পরে আসলাম খান খুঁটির উপর উঠার পরে হঠাৎ লাইন চালু করে দেয়া হয়। আসলাম খান চিৎকার দিয়ে খুঁটির উপর থেকেই বলেন লাইন চালু করছে কেন, এ সময় সহকারী লাইনম্যান শামছু উদ্দিন তাৎক্ষনিক মুঠোফোনে এস বি এ বাবুল হাসানকে বললে ফের শাটডাউন দেওয়ায় আসলাম খান প্রাণে বেঁচে যান।

এ ব্যপারে শাটডাউন নেওয়া সহকারী লাইনম্যান শামছু উদ্দিন বলেন, এস বি এ বাবুল হোসেন ভুল করে লাইন চালু করে ফেলেছে।

অভিযোগ উঠেছে, বিদ্যুৎ অফিসে স্থায়ী লাইনম্যান থাকার পরেও অস্থায়ী লাইনম্যান পাঠিয়ে কাজ করিয়ে স্থায়ী লাইনম্যানগণ বসে বসে সরকারি বেতন নেন। অনেক সময় প্রতিহিংসার বশঃবর্তী হয়ে অস্থায়ী লাইনম্যানগণ কাজ করতে গিয়ে প্রাণ দিতে হয়। পরে এটাকে দুর্ঘটনা বলে চাপিয়ে দেয়া হয়।
অতীতে শাটডাউন নিয়ে সংযোগ বিচ্চিন্ন করার জন্য অস্থায়ী একাধিক লাইনম্যান খুঁটির উপরে উঠে কাজ করা অবস্থায় বিদ্যূৎ চালু করার কারনে বিদ্যূৎস্পৃষ্ট হয়ে প্রাণ হারালেও এসব ঘটনা দুর্ঘটনা বলে চালিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ চাউর রয়েছে।

এ ব্যপারে সরাইল উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী (বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ) এ জেড এম আনোয়ারুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমি জানার পর তাকে ফোন করি। সে আমার কাছে ভুল স্বীকার করে হ্মমা চাই। ভবিষ্যতে এমন কাজ করবে না বলে অঙ্গীকার করেছে ।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
আরও পড়ুন