২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি পীরজাদা শাহ এমদাদুল হকের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ , ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 6 years আগে

20171122_093858

এম এ করিম সরাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম 20171121_205745ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের টিঘর গ্রামের বাসিন্দা, টিঘর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের(জাতীয়করণকৃত) ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক(অবসর প্রাপ্ত), সরাইল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি পীরজাদা শাহ এমদাদুল হক ওরফে ইউনুছ মিয়া(৬২) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে  ২১নভেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যবরণ করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি……রাজিউন)।  মঙ্গলবার সন্ধায় তাঁর মরদেহ গ্রামের বাড়ি টিঘর গ্রামে নিয়ে আসা হলে   বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন তাঁকে একনজর দেখতে গ্রামের বাড়িতে ভীড় জমায়। আজ ২২নভেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় টিঘর ঈদগাহ মাঠে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। মরহুম পীরজাদা শাহ এমদাদুল হকের ফুফাত ভাই উপজেলার চুন্টা ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শাহজাহান মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জানাজা পূর্ব এক সংক্ষিপ্ত  আলোচনায় বক্তব্য রাখেন সরাইল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব এডভোকেট মো: আব্দুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক আলহাজ্ব এডভোকেট নাজমুল হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মো: আনোয়ার হোসেন মাস্টার, সরাইল উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মো: গোলাম মোস্তফা,  সরাইল উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি  মো: সামসুল আলম(আলম মাস্টার), ব্রাহ্মণবাড়িয়া  প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো: আরজু মিয়া, সরাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো: আইয়ুব খান, সরাইল উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মো: শফিকুর রহমান, পানিশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মো: দ্বীন ইসলাম, এলাকার বিশিষ্ট সর্দার সায়েদ উল্লাহ প্রমুখ। জানাযা নামাযে ইমামতি করেন মরহুমের ভাইয়ের ছেলে হাফেজ মো: জাবের আজহার।  উপজেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, শিক্ষক, সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ এলাকার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও সাধারণ ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা উক্ত জানাযায় অংশগ্রহব করেছেন। উল্লেখ্য, গত ১৯নভেম্বর রবিবার সকালে একটি গ্রাম্য শালিস শেষ করে বাড়িতে পৌছাঁর পর পীরজাদা শাহ এমদাদুল হক হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। এসময় পরিবারের লোকজন তাঁকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাঁকে ঢাকায় প্রেরণ করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় তিনি মঙ্গলবার দুপুরে ইন্তেকাল করেন। তিনি চার ছেলে ও চার মেয়েসহ অসংখ্য আত্বীয়-স্বজন ও গুনগগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ ২২ নভেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় টিঘর ঈদগাহ মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

September 2023
M T W T F S S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  
আরও পড়ুন