১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইল উপজেলা সদরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত:১০

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ , ২২ মে ২০১৮, মঙ্গলবার , পোষ্ট করা হয়েছে 6 years আগে

এম এ করিম সরাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা সদরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। সোমবার(২১মে) রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলা সদরের বিকাল বাজারে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে সরাইল বিকাল বাজার জনতা ব্যাংকের নীচে উপজেলার সদর ইউনিয়নের হালুয়াপাড়া গ্রামের আরমান নামের এক যুবক এক স্কুল ছাত্রীকে চড় থাপ্পড় দেয়। এসময় জনতা ব্যাংকের নীচতলার ব্যবসায়ী তপু, তোফায়েল ও সবুজসহ অন্যান্য ব্যবসায়ীরা এ ঘটনার প্রতিবাদ করে আরমানের উপর চড়াও হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আরমানের পক্ষের একদল যুবক একই দিন সন্ধার পর দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে জনতা ব্যাংকের নীচতলায় দাদী-মা ফ্যাশন গ্যালারী নামের দোকানে হামলা চালিয়ে লুটপাট করে ও ব্যবসায়ী তপুকে মারধর করে। খবর পেয়ে তপুর গ্রামের বাড়ি কুট্টাপাড়া থেকে লোকজন বিকাল বাজারে আসে। এ ঘটনার সূত্র ধরে রাত সাড়ে ৯টায় উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় অন্নদা স্কুলের সামনের সড়কে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সরাইল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রাত ১০টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করেন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ১০জন আহত হয়।   সংঘর্ষ চলাকালে বিকাল বাজার শাহী জামে মসজিদসহ আশ-পাশের মসজিদগুলোতে খতমে তারাবী চলছিল বলে মুসল্লি সূত্রে জানা গেছে। এ ব্যাপারে  আরমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বলেন, মেয়েটির সাথে আমার দীর্ঘ দিন ধরে সম্পর্ক রয়েছে। ঘটনার সময় আমি মেয়েটির সাথে কথা বলতে চাইলে সে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করলে আমি তাকে একটি চড় দেই। এসময় তপুসহ ব্যবসায়ীরা আমাকে মেরে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনায় আমার লোজন উত্তেজিত হয়েছে। আমি আহত হয়ে বাড়িতেই আছি। পরবর্তী ঘটনা সম্পর্কে আমার জানা নেই। সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মো: মফিজ উদ্দিন ভূইয়া বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
আরও পড়ুন