২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইল অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদে পুনঃ নির্বাচন দাবি করলেন আওয়ামী লীগ নেতা এডঃ শফিকুল ইসলাম গাজী

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৬:২৪ অপরাহ্ণ , ১১ ডিসেম্বর ২০২১, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 10 months আগে

সরাইল অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদে পুনঃ নির্বাচন দাবি করলেন আওয়ামী লীগ নেতা এডঃ শফিকুল ইসলাম গাজী

এম এ করিম সরাইল নিউজ ২৪.কমঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদে পুনঃ নির্বাচন দাবি করেছেন অরুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী এডভোকেট শফিকুল ইসলাম গাজী। প্রশাসনের সাথে গোপন আতাঁত করে নৌকা প্রতীকের ব্যালট পেপার লাঙ্গল প্রতীকের বান্ডেলে ঢুকিয়ে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে চেয়ারম্যান পদে তাঁকে পরাজিত করা হয়েছে বলে আজ শনিবার (১১ ডিসেম্বর) বিকাল ৩ টায় সরাইল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে অভিযোগ করেন তিনি। এ ব্যপারে তিনি প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর গত ২ ডিসেম্বর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, প্রশাসনের যোগসাজশে আমি হেরেছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমার নির্বাচন পরিচালনার প্রধান এজেন্ট ও অরুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তালেবকে নির্বাচনের দিন ইউএনও সাহেবের রোমে নিয়ে ৩ ঘন্টা আটক করে রাখেন। এতে জনমনে আতংক সৃষ্টি হয়। এদিকে বিভিন্ন কেন্দ্রে প্রশাসনের লোক দিয়ে আমার পুলিং এজেন্টদেরকে মেরে ভোট কেন্দ্রে আটকে রাখা হয়। ভোট গণনা শেষ হওয়ার পর আমার লোকদেরকে ছাড়েন। নৌকার বেইজ দেখে দেখে আমার লোকদের বেদম পেটান প্রশাসনের লোকজন। নির্বাচনের দিন প্রশাসনের হাতে আমার ৩০জন নেতা-কর্মী আহত হয়। এসময় প্রশাসনের এই মারমুখী পদক্ষেপ দেখে আমার কর্মী সমর্থকদের মাঝে আতংকের সৃষ্টি হয়। আর এই সুযোগে আমার প্রতিপক্ষ লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর লোকজন জাল ভোট দেয়। আমি একাধিকবার প্রশাসনকে বললেও ওনারা নীরব থাকেন। তাতে বোঝা যাচ্ছিল প্রশাসনের লোকজন লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থনে কাজ করছিল। তাই নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে ও নির্বাচম বাতিল করে পুনঃ নির্বাচন দেওয়ার দাবিতে আমি গত ০২-১২-২০২১তারিখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ও প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর লিখিত অভিজোগ দিয়েছি। তিনি আরও বলেন, এ ব্যপারে আমি আইনের আশ্রয় নেওয়ার প্রক্রিয়া চালাচ্ছি।

এ ব্যপারে উপজেলা সমাজসেবা অফিসার ও নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, নির্বাচনে আচরন বিধি লংঘনের অভিযোগ পেয়েছি তবে অনিয়মের কোনো অভিযোগ পায়নি।

এ ব্যপারে সরাইল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফুল হক মৃদুল বলেন, নির্বাচনে হেরে গেলেই প্রার্থীরা নানা অভিযোগ করেন। কাউকে তো সরাসরি এনে আটক করে রাখার কোনো সুযোগ নেই। সরকার দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে যাওয়ার তো আমাদের দরকার নেই। নির্বাচন পরিচালনা করেছেন নির্বাচন কমিশন। আমরা কেবল নিরপেক্ষ থেকে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি ঠিক রাখার লক্ষ্যে কাজ করেছি।

উল্লেখ্য গত ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত তৃতীয় ধাপে সরাইল উপজেলার ৯ টি ইউনিয়ন পরিষদেরর মধ্যে অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৫জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দীতা করেন। এদের মধ্যে লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া ৭ হাজার ২১৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এডভোকেট শফিকুল ইসলাম গাজী পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৪৪ ভোট।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

October 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন