১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে শহীদ বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার ৫০তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৯:৩৫ অপরাহ্ণ , ৬ ডিসেম্বর ২০২১, সোমবার , পোষ্ট করা হয়েছে 2 years আগে

সরাইলে শহীদ বুদ্ধিজীবী সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার ৫০তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

এম এ করিম সরাইল নিউজ ২৪.কমঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার সদর ইউনিয়নের আলীনগর গ্রামের সৈয়দ পরিবারের সূর্যসন্তান শহীদ বুদ্ধিজীবী এডভোকেট সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার ৫০তম শাহদাত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ইসলামাবাদ মাদ্রাসায় এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ, কোরআন খতম ও মসজিদে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এডভোকেট সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার পারিবারিক উদ্যোগে দোয়ার মাহফিল ও তাবারক বিতরণ করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন ইসলামাবাদ মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আহসান উল্লাহ। এসময় উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার সুযোগ্য সন্তান সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জজ কোর্টের সিনিয়র স্বনামধন্য এডভোকেট সৈয়দ তানভীর হোসেন কাউসার, সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার আপন ছোট ভাই সরাইল উপজেলা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি ও সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সৈয়দ আলী আবদাল , সরাইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব খান বাবুল ও সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক বিভিন্ন স্তরের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।

এ সময় এডভোকেট সৈয়দ তানভীর হোসেন কাউসার বলেন, আজ থেকে ঠিক পঞ্চাশ বছর পূর্বে ৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর নির্মম হত্যার শিকার হন আমার বাবা সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল ও আমার ছোট চাচা সৈয়দ আফজল হোসেনসহ আরো ৪০ জন।
দেশ ও দেশের মানুষকে ভালোবেসে আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ মনে ধারণ করে রাজনীতি করেছিলেন। ১৯৫৫ থেকে ছাত্র রাজনীতি দিয়ে শুরু এবং মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত যুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে।
ব্যক্তিত্ববোধ ছিলো বাবার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস । বাবা যার জন্য কখনো মাথানত করেননি। মাতৃভূমির জন্য বুক ফুলিয়ে উৎসর্গ করেছিলেন নিজের জীবন।
তিনি আরও বলেন, আমার বয়স যখন আট তখন বাবাকে হারিয়েছি। কেটে গেছে পিতৃহীন জীবনের পঞ্চাশ বছর। বাবা নেই সাথে কিন্তু আছেন আমার প্রার্থনাতে। ভালো থাকুক পৃথিবীর সকল বাবা-মা।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

April 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930  
আরও পড়ুন