২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নিহত: ১, পুলিশসহ আহত: ২০

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৪:২২ অপরাহ্ণ , ১৩ এপ্রিল ২০২৪, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 1 month আগে

সরাইলে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে নিহত: ১, পুলিশসহ আহত: ২০

 এম এ করিম সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া):

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ফসলী জমির ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে কামাল উদ্দিন(৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশসহ আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের  ২০জন। উপজেলার শাহজাদাপুর ইউনিয়নের শাহজাদাপুর গ্রামের মনুর গোষ্ঠী ও হাশিমের গোষ্ঠীর লোকজনের মধ্যে শনিবার (১৩ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০ টায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে নিহত কামাল উদ্দিন শাহজাদাপুর গ্রামের মৃত  শাহাদাৎ আলীর পুত্র।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ফসলী জমির ধান কাটাকে কেন্দ্র করে শাহজাদাপুর গ্রামের মনুর গোষ্ঠী ও হাশিমের গোষ্ঠীর লোকজনের মধ্যে বেশ কয়েকদিন ধরে বিরোধ চলছিল। পূর্ব বিরোধের জের ধরে আজ বুধবার(১৩ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০ টায় দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে উভয় গোষ্ঠীর লোকজন রক্তক্ষী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রন করেন।  দুই ঘন্টাব্যপি চলমান সংঘর্ষে পুলিশসহ উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়। সংঘর্ষে গুরুতর আহত কামাল উদ্দিনকে(৫৫) স্বজনরা সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ব্যপারে নিহত কামাল উদ্দিন এর বড় ভাই সাবেক ইউপি মেম্বার আব্দুর রহমান বলেন, ফসলী জমির ধান কাটার বিরোধে মনুর গোষ্ঠী ও হাশিমের গোষ্ঠীর লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। আমরা নিরপেক্ষ থাকা সত্ত্বেও দাঙ্গাবাজরা আমাদের বাড়ি ঘরে এসে হামলা করে আমার ভাই কামাল উদ্দিনকে খুন করেছে। আজিজ মিয়া নামে আমার আরেক ভাই গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমার ভাই কোনো পক্ষের ছিল না।গত দুই বছর আগে আমার ভাই এর স্ত্রী মারা গেছে। পারিবারিকভাবে সে ছিল ৫ পুত্র ও কন্যা সন্তানের জনক। পেশাগতভাবে সে একজন কৃষক ছিল। পাশাপাশি বিলের মধ্যে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করতেন।  আমার ভাইকে যারা  হত্যা করেছে তাদের বিচার চাই।

এ ব্যপারে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিৎ করে বলেন, নিহত কামাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এ ব্যপারে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

May 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আরও পড়ুন