১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে ইয়াছিন মিয়া নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ , ২৪ এপ্রিল ২০২০, শুক্রবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

 

এম এ করিম সরাইল নিউজ ২৪.কমঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ইয়াছিন মিয়া(১৯) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃত ইয়াছিন মিয়া উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউড়া গ্রামের সুরুজ আলীর পুত্র। আজ শুক্রবার(২৪এপ্রিল)) সকাল ১০টায় উপজেলার পাকশিমুল-অরুয়াইল ব্রীজ সংলগ্ন তিতাস নদীতে ভাসমান অবস্থায় ইয়াছিন মিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ব্যপারে অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত লাশটি ধামাউরা গ্রামের সুরুজ আলীর একমাত্র উপার্জনক্ষম পুত্র ইয়াছিন মিয়ার। সে এলাকায় অত্যন্ত ভাল ছেলে হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এমন একটা ভাল ছেলের লাশ উদ্ধারের খবরে এলাকাবাসীর মাঝে শোক নেমে এসেছে৷ মৃত ইয়াছিন মিয়া রানিদিয়া গ্রামের মোখলেছ মিয়ার নৌকায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। গত দুই দিন ধরে বাড়িতে আসেনি ইয়াছিন মিয়া। গতকাল ইয়াছিনের মোবাইল থেকে নৌকার মালিক মুখলেছ মিয়া মৃত ইয়াছিনের ফুফুর সাথে কথা বলেছেন বলে জানতে পেরেছি। কিন্ত লাশ উদ্ধারের পর থেকে ফোনটি বন্ধ রয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমার মনে হয় পরিকল্পিতভাবে ইয়াছিনকে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আইনী প্রক্রিয়ায় এ হত্যাকান্ডের আসল রহস্য উদঘাটন করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্থি দাবি করছি।সরাইলে ইয়াছিন মিয়া নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার
এম এ করিম সরাইল(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতাঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে ইয়াছিন মিয়া(১৯) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছেন পুলিশ। উদ্ধারকৃত ইয়াছিন মিয়া উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউড়া গ্রামের সুরুজ আলীর পুত্র। আজ শুক্রবার(২৪এপ্রিল)) সকাল ১০টায় উপজেলার পাকশিমুল-অরুয়াইল ব্রীজ সংলগ্ন তিতাস নদীতে ভাসমান অবস্থায় ইয়াছিন মিয়ার লাশটি উদ্ধার করে অরুয়াইল ফাঁড়ি পুলিশ। মৃত ইয়াছিন মিয়ার পরিবারের লোকজনের সাথে মুঠোফোনে কথা বলে জানা যায়, রানিদিয়া গ্রামের মুখলেছ মিয়ার নৌকায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন ইয়াছিন মিয়া। গত ৪দিন ধরে ইয়াছিন বাড়িতে না আসায় ইয়াছিনের পিতা-মাতা নৌকার মালিক মুখলেছ মিয়ার গ্রামের বাড়ি রানিদিয়া গিয়ে ইয়াছিনের সন্ধান চাইলে তিনি বলেন ইয়াছিন তার নৌকা থেকে চলে গেছে। তবে ইয়াছিনের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি তার হাতে রয়েছে বলে তিনি তাদের জানান। আজ ইয়াছিনের লাশ উদ্ধার হওয়ার পর ইয়াছিনের পিতা মাতার কান্নায় আকাশ বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে তারা এখন পাগল প্রায়। এ ব্যপারে অরুয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত লাশটি ধামাউড়া গ্রামের সুরুজ আলীর একমাত্র উপার্জনক্ষম পুত্র ইয়াছিন মিয়ার। সে এলাকায় অত্যন্ত ভাল ছেলে হিসেবে পরিচিত ছিলেন। এমন একটা ভাল ছেলের লাশ উদ্ধারের খবরে এলাকাবাসীর মাঝে শোক নেমে এসেছে৷ ইয়াছিন মিয়া রানিদিয়া গ্রামের মোখলেছ মিয়ার নৌকায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। গত ৪ দিন ধরে বাড়িতে আসেনি ইয়াছিন মিয়া। গতকাল ইয়াছিনের মোবাইল থেকে নৌকার মালিক মুখলেছ মিয়া মৃত ইয়াছিনের ফুফুর সাথে কথা বলেছেন বলে জানতে পেরেছি। কিন্ত লাশ উদ্ধারের পর থেকে মৃত ইয়াছিনের মোবাইল ফোনটি বন্ধ রয়েছে। তিনি আরও বলেন, আমার মনে হয় পরিকল্পিতভাবে ইয়াছিনকে হত্যা করে লাশ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আইনী প্রক্রিয়ায় এ হত্যাকান্ডের আসল রহস্য উদঘাটন করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্থি দাবি করছি। এ ব্যপারে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল আহমেব এর সাথে মঠোফোনে কথা হলে তিনি লাশ উদ্ধারের সত্যতা বিশ্চিৎ করে বলেন, শুক্রবার ছুটির দিন হিসেবে লাশ উদ্ধার করা থানায় রাখা হয়েছে। পরদিন শনিবার ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হবে। এ ব্যপারে মামলা করার প্রস্তুতি  চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

June 2024
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
আরও পড়ুন