১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

সরাইলে আ’লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনের সমাবেশে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের এমপি এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধাকে লাল কার্ড প্রদর্শন

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:৪৭ অপরাহ্ণ , ২৪ জুন ২০১৮, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 6 years আগে

sarail pic-25-06-2018

 500x350_826f55f20e23ca8bf004291dfd5aad53_9

এম এ করিম সরাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক:

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেছে সরাইল উপজেলা আ’লীগ। দিবসটি পালন উপলক্ষে শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর আগে শুক্রবার রাত বারটার পর কালিকচ্ছ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে কেক কেটে দিবসটি পালনের সূচনা করেন উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো. রফিক উদ্দিন ঠাকুর, ইউপি আ’লীগের সহ-সভাপতি মো. আমীর আলী ও সম্পাদক মো. ছলিম উদ্দিন। শনিবার সকালে উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুর রাশেদের সভাপতিত্বে ও সদস্য অ্যাডভোকেট জয়নাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- আহবায়ক কমিটির সদস্য মো. জাহাঙ্গীর আজাদ, মো. শফিকুর রহমান সাফি ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আশরাফ উদ্দিন মন্তু প্রমূখ। বক্তারা জাপা নেতা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধার বিগত দিনের কর্মকান্ডের সমালোচনা করে বলেন, তিনি আ’লীগের ভোটে এমপি নির্বাচিত হয়ে সরকারের কোন কাজেই স্থানীয় আ’লীগের সাথে সমন্বয় করছেন না। টিআর কাবিখা দিয়ে আ’লীগের মাঠ পর্যায়ের অনেক নেতা কর্মীকে তিনি জাতীয় পার্টিতে নিয়ে যাচ্ছেন। উনি নিজ দলের বাহিরে কোন কিছুই বুঝেন না। এসময় এডভোকেট আব্দুর রাশেদ জিয়াউল হক মৃধা এমপিকে লক্ষ্য করে লাল কার্ড প্রদর্শন করলে উপস্থিত দলীয় নেতা কর্মীরা চিৎকার করে তাকে সমর্থন করেন । এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার কাছ থেকে আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশী সুবিধা নিয়েছেন এডভোকেট আব্দুর রাশেদ। তিনি করত জাসদ, পরে করেছে জাতীয়পার্টি , এখন করে আ’লীগ। তিনি দলছূট ও অস্থির চিত্তের মানুষ। কখন যে কি করে বলা যায় না। শেখ হাসিনা যদি আমাকে সবুজ কার্ড দেখায় তার লাল কার্ডে কি হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

May 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আরও পড়ুন