৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির এমপি হিসেবে শপথ নিয়েছেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১১:৪৭ অপরাহ্ণ , ৯ জুন ২০১৯, রবিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 3 years আগে

 

এম এ করিম সরাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্কঃ

একাদশ জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির সংসদ সদস্য(এমপি) হিসেবে শপথ নিয়েছেন বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও বিশিষ্ট ভাষা সংগ্রামী অলি আহাদের মেয়ে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। রোববার(৯জুন) দুপুর সোয়া ১২টায় সংসদ সচিবালয়ের নিজ কার্যালয়ে স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান। জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন। পরে শপথ গ্রহণ শেষে রুমিন ফারহানা শপথ বইয়ে স্বাক্ষর করেন। এর আগে গত ২৮ মে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানাকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ইসির যুগ্ম-সচিব আবুল কাসেম। একাদশ জাতীয় সংসদে আনুপাতিক হারে বিএনপি একটি মাত্র সংরক্ষিত আসন পেয়েছে। সেই আসনে বিএনপি রুমিন ফারহানাকে মনোনয়ন দেয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন প্রার্থী ছিলেন ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়াকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। ধানের শীষ দলীয় প্রতীকে তিনি বিপুল ভোটে সেখানে নির্বাচিত হয়েছেন। উল্লেখ্য ইতিপূর্বেও উকিল আব্দুস সাত্তার ভূইঁয়া এমপি এ আসন থেকে ৪বার নির্বাচিত এমপি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। এ ব্যাপারে ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা এমপি সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, যেকোনো রাজনীতিবিদের জন্যে সংসদে যাওয়া, সংসদে বসে দেশের কথা, দেশের মানুষের কথা বলা একটি স্বপ্ন। সুতরাং আজকে প্রথমবারের মতো সংসদে যাওয়া সেই স্বপ্নের পূরণ। এটি আমার জন্যে একটি আনন্দের দিন। কিন্তু, একই সঙ্গে এই দিনটি আমার জন্যে অত্যন্ত লজ্জার এবং কষ্টের।” “লজ্জার এবং কষ্টের এ কারণে যে আমি এমন একটি সংসদে প্রতিনিধিত্ব করছি যে সংসদটি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। এই সংসদের সঙ্গে বাংলাদেশের জনগণের কোনো সম্পর্ক নেই। আমি খুশি হবো যদি আমার সাংসদ হওয়ার মেয়াদ আর একদিনও না বাড়ে। এবং সংসদটি ভেঙ্গে দিয়ে অতি দ্রুত একটি নির্বাচন দেওয়া হয়। যে নির্বাচনটি হবে জনগণের, অংশগ্রহণমূলক, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ।” অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমাদের দলে কোনো বিভেদ নেই। দলের স্বার্থে, দেশের স্বার্থে যেকোনো সময় দল যেকোনো সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। বিএনপি দলীয় এমপিদের শপথ গ্রহন এটাও দলের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারকসহ দলের স্থায়ীয় কমিটিতে আলোচনাক্রমে দলের সিদ্ধান্তেই শপথ নেওয়া হয়েছে। এখানে দলে কোনো বিভেদের পেশ্ন আসে না। এছাড়াও তিনি বলেন, আমাদের কথা বলার জায়গা সংকোচিত। কোনো সভা, সমাবেশ করতে গেলে নিয়ম, অনুমতির বেড়াজালে তা করা যাচ্ছে না। তাই দলীয় সিদ্ধান্তে আমরা শপথ নিয়ে সংসদে এসেছি। দেশ ও দেশের মানুষের অধিকারের প্রশ্নে কথা বলার জন্য। আমাদের স্পেস অনেক কম। যতটুকু স্পেস পাব তারই সঠিক ব্যবহার করব। বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দেশের তিন বারের নির্বাচিত সাবেক প্রধান মন্ত্রী। দেড় বছর ধরে একটি রাজনৈতিক মামলায় তিনি কারাগারে বন্দী। বয়স, পারিপার্শ্বিক অবস্থাসহ সার্বিক দিক বিবেচনায় তিনি বাংলাদেশের আইনে জামিন লাভের যোগ্য। তিনি আরও বলেন দেশে ১বছরের নারী থেকে ধরে ৬৫বছরের নারী পর্যন্ত ধর্ষিত হচ্ছে। এর সঠিক বিচার হচ্ছে না। সংসদে এসেছি নির্যাতিত, নিপীড়িত ও অবহেলিত মানুষের কথা বলতে, দেশে সুষ্ঠু গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক ধারা ফিরিয়ে এনে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করার পক্ষে কথা বলতে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

October 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন