২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ উপনির্বাচন: প্রচারনায় ৫ প্রার্থী

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৩:১৬ অপরাহ্ণ , ২৭ অক্টোবর ২০২৩, শুক্রবার , পোষ্ট করা হয়েছে 9 months আগে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ উপনির্বাচন: প্রচারনায় ৫ প্রার্থী

এম এ করিম সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) :

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের উপনির্বাচনে প্রতীক বরাদ্ধ পাওয়ার পর থেকে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রতিদ্বন্দী ৫ প্রার্থী। নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু, কলার ছড়ি প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা, লাঙ্গল প্রতীকে জাপা মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট আব্দুল হামিদ ভাসানী,  আম প্রতীকে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির প্রার্থী মো. রাজ্জাক হোসেন এবং গোলাপ ফুল প্রতীকে জাকের পার্টির প্রার্থী  জহিরুল ইসলাম (জুয়েল)  প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।
নৌকা প্রতীকে ভোটের সমর্থনে উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে  উপজেলা সদরে বিশেষ কর্মীসভা করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নৌকা প্রতীকে ভোটের সমর্থনে মতবিনিময় সভা চলছে। এছাড়া ভোটারদের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও কর্মীরা ভোটারদের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন।
কলার ছড়ি প্রতীকের প্রচারনায় নোয়াগাঁও ও কালিকচ্ছ এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় মতবিনিময় সভা করা হয়েছে। সরাইল ও আশুগঞ্জ নির্বাচনী এলাকার কলার ছড়ির কর্মী ও সমর্থকরা ভোটারদের সমর্থন আদায়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অন্যান্য প্রার্থীরাও নিজ নিজ দলীয়-কর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে নিজ নিজ প্রতীকে ভোটারদের সমর্থন পেতে বিভিন্ন এলাকায় প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন।

ভোটারদের সমর্থন পেতে প্রার্থীগণ প্রচারনা চালিয়ে গেলেও ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে আগ্রহ কম অনেক ভোটারদের মাঝে।  বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত সরাইল-আশুগঞ্জ নির্বাচনী এলাকায়  বিএনপি সমর্থিত কোনো প্রার্থী না থাকা ও দলীয় আন্দোলনে কেন্দ্রের নির্দেশে বিএনপির নেতা-কর্মীরা মাঠে থাকতে সক্রিয় থাকায় ও প্রায় ১ মাস মেয়াদে এই উপনির্বাচন হওয়ায় সাধারণ ভোটারদের মাঝে নেই তেমন নির্বাচনী আমেজ।

সরজমিনে নির্বাচনী এলাকা ঘুরে ও সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আসন্ন উপনির্বাচনে  ভোট দানে আগহী কম অনেক সাধারণ ভোটারদের।  গ্রামগঞ্জ ও পাড়া মহলায় নির্বাচনী যে আমেজ থাকার কথা  সাধারণ ভোটারদের মাঝে নির্বাচন নিয়ে তেমন উৎসাহ উদ্দীপনা নেই।  তবে বিগত ২২ বছর পর এ আসনে  আওয়ামী লীগ দলীয় কোনো প্রার্থী নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করায় আওয়ামী লীগ দলীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে রয়েছে অনেকটা উচ্ছ্বাস।

এদিকে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনীত হয়ে মহাজোটের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত  সাবেক ২ বারের এমপি ও জাতীয় পার্টির একাংশের নেতা এডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা এবার কলার ছড়ি প্রতীকে এ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে সক্রিয় থাকায় জাতীয় পার্টি মনোনীত লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থী এডভোকেট আব্দল হামিদ ভাসানীর দলীয় ভোট অনেকটা দ্বিধাবিভক্ত হবে বলে ধারণা করছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

এদিকে প্রচারণায় থেমে নেই আম প্রতীকে  ন্যাশনাল পিপলস পার্টির প্রার্থী মো. রাজ্জাক হোসেন এবং গোলাপ ফুল প্রতীকে জাকের পার্টির প্রার্থী  জহিরুল ইসলাম (জুয়েল)।  নিজ নিজ কর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে ভোটারদের সমর্থন আদায়ে  প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন তারাও।

নিজ নিজ প্রতীকের সমর্থনে ৫ জন প্রার্থী প্রচারনা চালিয়ে গেলেও সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আগামী ৫ তারিখের উপনির্বাচনে এ আসনে নৌকা ও কলার ছড়ি প্রতীকের প্রার্থীদের মধ্যেই ভোটের দ্বিমুখী লড়াই হবে বলে  ধারণা করছেন এখানকার সাধারণ জনগণ।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়,
ব্রাক্ষণবাড়িয়া ২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে ১৭টি ইউনিয়নে মোট ভোটার  ৪লক্ষ ১০ হাজার ১১২জন। এদের মধ্যে মোট পুরুষ ভোটার ২ লক্ষ ১৭হাজার ৪৩০ জন এবং মহিলা ভোটার ১ লক্ষ ৯২ হাজার ৬৮২ জন।
এ আসনে মোট ভোট কেন্দ্র ১৩২টি এবং ভোট কক্ষ ৮৭৯টি। এদের মধ্যে পুরুষ ভোট কক্ষ ৪৩০টি ও মহিলা ভোট কক্ষ ৪৪৯টি।

এ ব্যপারে সরাইল উপজেলার সৈয়দটুলা গ্রামের পশ্চিমপাড়ার সাধারণ ভোটার শফিক মিয়া বলেন, অন্যান্য নির্বাচনের মত আসন্ন উপনির্বাচনে আমাদের এলাকার সাধারণ ভোটারদের মাঝে তেমন কোন  নির্বাচনী আমেজ দেখতে পাচ্ছি না।  আমার নিজের মাঝেও তেমন কোনো আগ্রহ নেই।

একই এলাকার রিক্সা চালক মনির মিয়া বলেন, আমরা গরীব মানুষ। রিক্সা চালিয়ে পরিশ্রম করে ভাত খায়।  যার মনচা হে পাশ করুক, অতলা খবর রাহি না। কেউ পাশ করলে তো আমরার কোনো লাভ অই না।
আগামী ৫ নভেম্বর এ আসনে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

July 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  
আরও পড়ুন