৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

EN

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে এমপি পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী এডভোকেট সৈয়দ তানবির হোসেনের(কাউছার) সংবাদ সম্মেলন

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ , ১২ আগস্ট ২০১৭, শনিবার , পোষ্ট করা হয়েছে 5 years আগে

 

এম এ করিম সরাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক:
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে এমপি পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী শহীদ বুদ্ধিজীবির সন্তান এডভোকেট সৈয়দ তানবির হোসেন(কাউছার) সংবাদ সম্মেলন করেছেন। শনিবার(১২আগস্ট) বিকালে সরাইল বিশ্বরোড খাঁটিহাতা রশিদ সুপার মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সরাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো: আইয়ুব খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা জজ কোর্টের আইনজীবি, সাবেক অতিরিক্ত পিপি ও সরাইল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ তানবির হোসেন(কাউছার)। সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে উপস্থিত সকল সাংবাদিক ও সুধীবৃন্দকে সম্মানের সহিত স্বাগত জানিয়ে মহান আল্লাহর প্রশংসা করে গভীর শ্রদ্ধার সাথে হাজার বছরের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানকে তিনি স্মরন করেন। তারই সাথে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সকল শহীদদের যারা রক্তাক্ত ১৫ই আগস্টের কালো রাত্রিতে শহীদ হয়েছেন তাঁরাসহ স্বাধীনতা যুদ্ধে ৩০লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষ বীরাঙ্গনা মা-বোনদেরও স্মরন করেন। এছাড়া তাঁর পিতা শহীদ বুদ্ধিজীবি এড: সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়া ও তাঁর ছোট কাকা বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আফজাল হোসেনসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া কুরুলিয়া খাল পাড়ে ৪০জন নিহত বীর শহীদদের বিদেহী আত্বার মাগফেরাত কামনা ও গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে সারা বাংলাদেশের শহীদ পরিবারের প্রতি শোকের মাস আগস্টে গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, আমি শহীদ বুদ্ধিজীবি এড: সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়ার সন্তান। এখানে উপস্থিত সকলকে আমার শহীদ পরিবারের পক্ষ থেকে অনেক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন। ১৯৯৫ সাল হতে আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জজ কোর্টে আজ অবধি সুনামের সহিত আইন পেশায় আছি। আমি সাবেক অতিরিক্ত পিপি ছিলাম। ১৯৯৭ সাল হইতে ২০০৫ পর্যন্ত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সরাইল উপজেলা শাখার আইন বিষয়ক সম্পাদক ছিলাম। পরবর্তীতে কার্যনির্বাহী কমিটিতে সদস্য থেকে দেশ বিরোধী নানা ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের বিরোদ্ধে রাজপথে সময়ে সময়ে আন্দোলন সংগ্রামে মুখ্য ভ’মিকা পালন করে আসছি। “আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান” ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার আমি সভাপতি ছিলাম। সরাইল সাহিত্য পরিষদ ও অন্বেষণ সাহিত্য সাংস্কৃতি পরিষদের উপদেষ্টাসহ নানা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সহিতও জড়িত আছি। আমার বাবা শহীদ বুদ্ধিজীবি এড: সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়া ১৯৫৫ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া কলেজ ছাত্র সংসদে ছাত্রলীগ মনোনীত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য ছিলেন। পরবর্তীতে ঢাকা মগবাজার আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও বৃহত্তর কুমিল্লা জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ঢাকা বারের সদস্য ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, আপনারা জানেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা দেশরতœ শেখ হাসিনা সারা দেশের তৃণমূলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা শহীদ পরিবারের সন্তানদের প্রতি তাঁর সু-নজর, সহানুভুতি ও ভালবাসার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত সময়ে সময়ে স্থাপন করছেন। তাই আমিও আপনাদের মাধ্যমে দেশরতেœর দৃষ্টি গোচর হতে চাই। কারণ আমার বাবা শহীদ বুদ্ধিজীবি এড: সৈয়দ আকবর হোসেন বকুল মিয়া দেশের জন্য প্রাণ বিসর্জন দিয়েছিল ১৯৭১ সালের ৬ই ডিসেম্বর। আর দেশ স্বাধীন হবার পর ৪৬টি বছর আমার মা স্বামী হারিয়ে সন্তানদের মানুষ করে গড়ে তুলতে সংগ্রাম করে গেছেন। বাংলাদেশ তথা উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২(সরাইল-আশুঞ্জ) নির্বাচনী এলাকায় আমি আওয়ামীলীগের একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী। আমি আল্লাহর অশেষ রহমতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার ¯েœহ ধন্য হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেলে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া-২(সরাইল-আশুগঞ্জ) নির্বাচনী এলাকার জনগণের সমর্থনে নিশ্চিত জয় হতে পারব বলে দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী। আমি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলে সকল লোভ লালসার উর্ধ্বে থেকে দুর্নীতিকে পদদলিত করে সরাইল-আশুগঞ্জ এলাকায় সমন্বিত উন্নয়নে প্রাণপন চেষ্টা করিব। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে সরাইল, আশুগঞ্জের প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও বিভিন্ন অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিক, রাজনৈতিক , সামাজিক নেতৃবৃন্দ ও সুধীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

October 2022
M T W T F S S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
আরও পড়ুন