২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

EN

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাদকসহ গ্রেপ্তার, থানায় মামলা

বার্তা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ , ২৯ জুলাই ২০২০, বুধবার , পোষ্ট করা হয়েছে 4 years আগে

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম বিল্লাহ ও তার সহযোগী এনাম হক (৩০) কে মাদকসহ গ্রেপ্তার করেছেন সরাইল থানার এ এস আই মোঃ আলাউদ্দিন। মঙ্গলবার(২৮জুলাই) বিকাল ৪টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কুট্রাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মাদকের নিয়মিত অভিযানে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মহাসড়কের কুট্রাপাড়া এলাকায় দায়িত্ব পালন করছিলেন এএসআই মো. আলাউদ্দিন। সন্দেহ হলে আরোহীসহ দুইজনের একটি কাল রং-এর মটরবাইককে দাঁড়াতে সিগনাল দেন। মটরবাইকের চালক মাসুম বিল্লাহ নিজের পরিচয় দিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন। আলাউদ্দিন তাতে বাধা দেন। দু’জনের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে মাসুম বিল্লাহর দেহ তল্লাশি করে  ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। মাদক বহনের দায়ে গ্রেপ্তার করতে চাইলে পুলিশকে কিলঘুষি মারতে থাকে মাসুম। এ সময় ঘটনাস্থলে শতাধিক লোক জড়ো হয়। সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হোসেন গিয়ে মাসুমকে থানায় নিয়ে আসেন।
এ ব্যপারে সরাইল থানার এএসআই মোঃ আলাউদ্দিন বলেন, মাসুমের মটরবাইককে সিগনাল দেওয়া মাত্র আমাকে গালমন্দ শুরূ করে। আটকের পর তার দেহ থেকে ৬ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করি। আমার কাছ থেকে ছুটে যেতে আমাকে কিলঘুষি মারতে থাকেন মাসুম। পরে ওসি স্যারের সহায়তায় তাকে থানায় নিয়ে আসা হয়।
পুলিশের হেফাজতে থাকা মাসুম বিল্লাহ নিজেকে নির্দোষ দাবী করে বলেন, আমি পুলিশকে মারধর করিনি। তবে একটু বার্গেনিক হয়েছে।

সরাইল সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আনিছুর রহমান বলেন, মাদক দ্রব্য বহন ও পুলিশের কর্তব্য কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মাসুম বিল্লাহর বিরূদ্ধে সরাইল থানায় মামলা হয়েছে। এর আগেও তার বিরূদ্ধে সদর মডেল থানায় ২টা ও বিজয়নগর থানায় ১টি মোট ৩টি মামলা রয়েছে। তার ব্যবহৃত মটরবাইকটি জব্দ করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আর্কাইভ

April 2024
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930  
আরও পড়ুন